শুক্রবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২২

| ২৫ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

KSRM
মহানগর নিউজ :: Mohanagar News

প্রকাশের সময়:
০৬:২০, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

মহানগর ডেস্ক

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ: বাংলাদেশে খেলা দেখানো নিয়ে অনিশ্চয়তা

প্রকাশের সময়: ০৬:২০, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

মহানগর ডেস্ক

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ: বাংলাদেশে খেলা দেখানো নিয়ে অনিশ্চয়তা

প্রতীকী ছবি

আসন্ন অক্টোবরের ১৬ তারিখে অস্ট্রেলিয়ায় যে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ক্রিকেট শুরু হবে, তার খেলা বাংলাদেশের টেলিভিশনে দেখানো যাবে কিনা, তা নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে। ক্রিকেট বাংলাদেশে অত্যন্ত জনপ্রিয়, কিন্তু এখনো বাংলাদেশের কোন প্রতিষ্ঠান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ম্যাচ সম্প্রচারের সত্ত্ব পায়নি। যে কারণে বাংলাদেশের দর্শকেরা সরাসরি খেলা দেখতে পাবেন কিনা তা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে।

কেন এই অনিশ্চয়তা তৈরি হলো?

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল আইসিসি এবং এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল এসিসির আয়োজিত ক্রিকেট ম্যাচগুলো সম্প্রচার করে স্টার গ্রুপের প্রতিষ্ঠান স্টার ডিজনি।

বাংলাদেশে স্টার ডিজনি অনুমোদিত প্রতিষ্ঠান হচ্ছে স্পোরডিয়াম। বাংলাদেশের জন্য বিভিন্ন ক্রিকেট টুর্নামেন্টের সম্প্রচার সত্ত্ব কিনে থাকে যেসব প্রতিষ্ঠান, এটি তার অন্যতম।

কিন্তু আর কয়েক সপ্তাহ পরে যে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরু হতে যাচ্ছে, সেটি বাংলাদেশের কোন টেলিভিশন চ্যানেল দেখাতে পারবে কিনা, তা এখনো অনিশ্চিত।
স্পোরডিয়ামের প্রধান নির্বাহী জিয়াউদ্দিন আদিল  বলেছেন, সম্প্রচার সত্ত্ব কেনার জন্য অর্থ পাঠানোর ছাড়পত্র এখনো না পাওয়ার কারণেই এই অনিশ্চয়তা।

তিনি বলেছেন, "বর্তমানে আমাদের এশিয়া কাপের অ্যাপ্লিকেশনটা এখনো প্রসেস হয়নি। সেটার জটিলতায়ই এখন টি-টোয়েন্টি ওয়ার্ল্ড-কাপের সম্প্রচারটা অনিশ্চয়তার মুখে পড়েছে। ইউজুয়ালি এগুলা ১০০ পারসেন্ট প্রি-পেমেন্ট হয়ে থাকে।
এখন এশিয়া কাপের পেমেন্ট করতে পারিনি দেখে, বাংলাদেশ উইমেন্স এশিয়া কাপ হোস্ট করছে, যেটা অক্টোবরের ১ তারিখ থেকে শুরু হচ্ছে সিলেটে—চারটা দেশ খেলবে ওখানে—বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান এবং শ্রীলঙ্কা, সেটারও সম্প্রচার সত্ত্ব নিয়ে আমাদের কাছে কোন নির্দেশনা নাই, তিনি বলছেন।

এখন আমরা স্টার স্পোর্টসের সাথেও আলোচনা করতে পারছি না যে আমাদের ওটা দেখানোর পারমিশন দেবে কিনা। কারণ আমরা অলরেডি একটা ডেডলকে চলে গেছি স্টার স্পোর্টসের সাথে, তাদেরকে আমাদের আগের ইভেন্টের টাকা পাঠাতে পারিনি বলে," বলছেন স্পোরডিয়ামের প্রধান নির্বাহী জিয়াউদ্দিন আদিল।
 জিয়াউদ্দিন বলেছেন, আইসিসি এবং এসিসির নিয়ম অনুযায়ী সম্প্রচার সত্ত্বের মেয়াদ থাকে চার বছর, অর্থাৎ ওই চার বছর সংস্থা দুইটির যত টুর্নামেন্ট হবে, সেটি ওই লাইসেন্স দিয়ে দেখানো যাবে।
কিন্তু এক্ষেত্রে শর্ত হচ্ছে, প্রতিটি টুর্নামেন্ট শুরুর আগে চুক্তি অনুযায়ী পুরো অর্থ পরিশোধ করতে হবে।

দর্শকদের হতাশা

আইপিএলের মত বিভিন্ন প্রিমিয়ার লিগ বাংলাদেশের দর্শকদের কাছে বেশ জনপ্রিয়। ফলে টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের সম্প্রচার নিয়ে অনিশ্চয়তার খবরে বাংলাদেশের ক্রিকেট ভক্তদের অনেকে হতাশা প্রকাশ করছেন।
ঢাকার একজন কলেজ শিক্ষার্থী নুসরাত জাহান বলেন, "টি-টোয়েন্টি ওয়ার্ল্ড-কাপ নিয়ে তো আমাদের এক ধরনের ক্রেজিনেস আছে। বিশেষ করে বাংলাদেশের এই দলটাকে নিয়ে আমাদের অনেক আশাভরসা। এখন যদি কোন টিভিতে খেলা না দেখা যায়, সেটা খুবই ডিসাপয়েন্টিং ব্যাপার হবে আমাদের জন্য।"
এদিকে, স্পোরডিয়াম বলছে, তারা ইতোমধ্যে এশিয়া কাপের সম্প্রচার সত্ত্বের জন্য চুক্তিমত অর্থ ব্যাংকের মাধ্যমে পাঠিয়ে দিয়েছে।

ব্যাংক কী বলছে?

ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামি ব্যাংকের মাধ্যমে এ অর্থ পাঠানো হয়েছিল, কিন্তু সেটি এখনো আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে স্টার ডিজনির কাছে পৌঁছায়নি।
ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের কর্পোরেট ব্যাংকিং বিভাগের প্রধান শাহরিয়ার কাবেজ বলেছেন, তাদের তরফের পেপারওয়ার্ক অর্থাৎ নিয়মানুযায়ী কাগজপত্র প্রস্তুত করে বাংলাদেশ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট বিভাগে পাঠানো হয়েছে, কিন্তু কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অনুমোদন এখনো তারা পাননি।

তিনি বলেন, "এটা সংশ্লিষ্ট বিভাগ অর্থাৎ বাংলাদেশ ব্যাংকের যে বিভাগ অনুমোদন দেয়, তাদের কাছেই আছে। এটা আটকে গেছে নাকি থেমে গেছে, এমন কনক্লুসিভ কিছু বলা যাচ্ছে না।
এটা প্রক্রিয়াধীন আছে, এবং আগে সব সম্প্রচারের অনুমতি যেভাবে পাওয়া গেছে, সেভাবেই হবে, এমন আশা করছি আমরা।"

বাংলাদেশে সম্প্রতি বৈদেশিক মুদ্রার সংকটের পটভূমিতে কর্তৃপক্ষ ডলারের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক লেনদেনে কিছু নিয়ন্ত্রণ আরোপ করে।

বাংলাদেশ ব্যাংক সম্প্রতি নিয়ম করেছে, জরুরি আমদানির প্রয়োজনে সর্বোচ্চ ৫ হাজার ডলার পর্যন্ত অগ্রিম পাঠানো যাবে।

কিন্তু খেলাধুলার সম্প্রচার সত্ত্বের ব্যাপারে আলাদা কোন নিয়ম আছে কিনা সে বিষয়ে জানা যায়নি।
এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক আনুষ্ঠানিক কোন মন্তব্য করেনি। কিন্তু নিয়ম ও নিয়মিত প্রক্রিয়া অনুযায়ী এই লেনদেন সম্পাদিত হবে বলে জানিয়েছেন একজন কর্মকর্তা। সূত্র বিবিসি বাংলা।
 

কেডি