শনিবার ২৫ জুন ২০২২

| ১০ আষাঢ় ১৪২৯

KSRM
মহানগর নিউজ :: Mohanagar News

প্রকাশের সময়:
১১:৫৫, ২৪ জুন ২০২২

মহানগর ডেস্ক

যে কারণে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে, মাস্ক পরার নির্দেশনা

প্রকাশের সময়: ১১:৫৫, ২৪ জুন ২০২২

মহানগর ডেস্ক

যে কারণে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে, মাস্ক পরার নির্দেশনা

ফাইল ছবি

সম্প্রতি দেশে করোনা সংক্রমণ আবার বাড়তে শুরু করেছে। অনেক দিন ধরে সংক্রমণের হার ১ শতাংশের নিচে ছিল। মৃত্যুহারও বেশ কিছুদিন একটানা শূন্যের কোঠায়। কিন্তু আবার সংক্রমণ বাড়তে শুরু করায় সবাই বেশ সচকিত। সংক্রমণের হার এখন তো ১৩ শতাংশের ওপরে। দু–একজনের মৃত্যুও হচ্ছে। ওমিক্রনের নতুন উপধরনে  করোনা শনাক্ত বাড়ছে।

যুক্তরাষ্ট্র, চীন, দক্ষিণ আফ্রিকা, ইউরোপের বিভিন্ন দেশ এবং ভারতসহ অনেক দেশেই এ রকম দেখা গেছে। একবার কমে, এরপর আবার বাড়ে। আমাদের দেশেও কিছুদিন সংক্রমণ কম থাকার পর এখন বাড়ছে।

শেষ ২৪ ঘণ্টায় একদিনে ১ হাজার ৩১৯ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে। করোনায় মৃত্যু হয়েছে আরো একজনের।  সংক্রমণ শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৩২ শতাংশ। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা যায়।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, ২৪ ঘণ্টায় ৯ হাজার ২১৪টি নমুনা পরীক্ষা করে ১ হাজার ৩১৯ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে। তাতে ১৩

ফেব্রুয়ারির পর প্রথমবারের মতো দৈনিক শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৩২ শতাংশে পৌঁছেছে। আগের দিন এ হার ছিল ১৩ দশমিক ৩০ শতাংশ। করোনার ওমিক্রন ধরনের দাপট কমে আসার পর শনাক্তের হার ১ শতাংশের নিচে ছিল বেশ কিছুদিন। দৈনিক শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দশের নিচেও নেমেছিল। মাঝে ২০ দিন করোনায় কারো মৃত্যু হয়নি। কিন্তু জুনের শুরু থেকে আবারো সংক্রমণ বাড়ছে প্রতিদিন। চারদিন ধরে মৃত্যুর খাতাও আর শূন্য থাকছে না।

নতুন রোগীদের নিয়ে দেশে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৯ লাখ ৬০ হাজার ৫২৮। তার মধ্যে ২৯ হাজার ১৩১ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে করোনাভাইরাস। ২

যে কারণে সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, টিকা গ্রহণ করার পর অথবা করোনায় সংক্রমিত হওয়ার পর শরীরে যে অ্যান্টিবডি বা রোগ প্রতিরোধক্ষমতা সৃষ্টি হয়, তার কার্যকারিতা ধীরে ধীরে কমে আসে এবং আট–নয় মাসের মধ্যে এটা ক্ষয় হয়ে যায়। ফলে আবার করোনায় সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। এ জন্য দুবার টিকা গ্রহণের পরও আবার নির্দিষ্ট সময় পর বুস্টার ডোজ নিতে হয়। কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে, বুস্টার ডোজের পরও একটি নির্দিষ্ট সময়কাল পর আবার টিকা নেওয়ার প্রয়োজন হয়।

ওমিক্রনের নতুন উপধরন

 ভাইরাসের বৈশিষ্ট্যই হলো এর প্রতিনিয়ত নতুন রূপ লাভ হয় এবং মিউটেশন হয়। আর এভাবে নতুন নতুন রূপ ধারণ করে। ভাইরাসের মূল বৈশিষ্ট্য অক্ষুণ্ন রেখে এর শাখা-প্রশাখা বিস্তার হলো সাবভেরিয়েন্ট বা উপধরন।

বাংলাদেশে গত বছরের ডিসেম্বরে ওমিক্রন ধরন শনাক্ত হয়। দেশে প্রথম ওমিক্রনে সংক্রমিত হন জিম্বাবুয়েফেরত বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের দুই সদস্য। গত বছরের ৯ ডিসেম্বর দেশে প্রথম অমিক্রনে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ার খবর জানা যায়। 

এরপর দেশে এর ব্যাপক বিস্তার ঘটে। গত ফেব্রুয়ারি থেকে করোনা শনাক্তের সংখ্যা কমে আসতে থাকে। গত ২৫ মার্চ থেকে ১২ জুন পর্যন্ত দৈনিক শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১০০-এর নিচেই ছিল। এরপর প্রতিনিয়ত বেড়ে চলেছে। এর মধ্যে গত মঙ্গলবার যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) জিনোম সেন্টারে দুই ব্যক্তি ওমিক্রনের নতুন উপধরনে (বিএ৪/৫) আক্রান্ত বলে শনাক্ত করা হয়। ওই দিন যবিপ্রবি এক বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, জিনোম সেন্টারের একদল গবেষক ওই দুই ব্যক্তির কাছ থেকে নেওয়া নমুনার জিননকশা (জিনোম সিকুয়েন্স) বিশ্লেষণ করে করোনার নতুন এই উপধরন শনাক্ত করেন। নতুন উপধরন মারাত্মক সংক্রামক দ্রুত মানুষকে আক্রান্ত করে ফেলে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন নতুন উপধরন করোনার সংক্রমণ বাড়াচ্ছে।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মাস্ক পরার নির্দেশ

দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ফের বেড়ে যাওয়ায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সবাইকে মাস্ক পরার নির্দেশনা দিয়েছে সরকার।
বৃহস্পতিবার মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে দেওয়া ওই অফিস আদেশে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মাস্ক পরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শ্রেণি কার্যক্রম পরিচালনা করতে বলা হয়েছে।
মহামারির মধ্যে ঘরের বাইরে মাস্ক পরে থাকার সরকারি নির্দেশনা বলবৎ থাকলেও নতুন করে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়। 
বাংলাদেশে ২০২০ সালে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের পর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। ৫৪৩ দিন বন্ধ থাকার পর গত বছরের সেপ্টেম্বরে শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফেরানো হয় স্বাস্থ্যবিধি মেনে।

সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মাস্ক পরার নির্দেশ

সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নির্দেশ দিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।  
ফের করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে মঙ্গলবার (২১ জুন) সব সংস্থার প্রধানকে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।
এতে বলা হয়, এখন করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ায় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সব অনুবিভাগ প্রধান এবং অধীন দপ্তর/সংস্থার প্রধানরাকে তার আওতাধীন কর্মকর্তা/কর্মচারীদের মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।
উপ সচিব মো. এনামুল হকের সই করা নির্দেশনা জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অধীন সব সংস্থা প্রধানের কাছে পাঠিয়ে নির্দেশনা বাস্তবায়নের জন্য বলা হয়েছে।  

কেডি