শুক্রবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২২

| ২৫ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

KSRM
মহানগর নিউজ :: Mohanagar News

প্রকাশের সময়:
১৬:৪৩, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক

‘প্রীতিলতার আত্মাহুতি সমাজকে মুক্তির পথ দেখিয়েছে’

প্রকাশের সময়: ১৬:৪৩, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক

‘প্রীতিলতার আত্মাহুতি সমাজকে মুক্তির পথ দেখিয়েছে’

বৃটিশদের শোষন, অত্যাচার থেকে দেশকে রক্ষা করতে বিপ্লবী প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদারের আত্মহুতি দিবসকে গভীর শ্রদ্ধায় স্মরণ করেছে চট্টগ্রামের বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগঠন। 

শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সকালে প্রীতিলতার ৯০তম আত্মাহুতি দিবসে এই বিপ্লবীর ভাস্কর্যে সংগঠনগুলো শ্রদ্ধা জানিয়েছে।

নারীমুক্তি কেন্দ্র, চট্টগ্রাম জেলা 

চট্টগ্রাম নগরীর পাহাড়তলীতে প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদারের ভাস্কর্যে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন চট্টগ্রাম জেলা নারীমুক্তি কেন্দ্র। এসময় সংক্ষিপ্ত সভায় বক্তারা বলেন, প্রীতিলতাসহ বৃটিশ বিরোধী বিপ্লবীদের স্মৃতি ও ইতিহাস সংরক্ষণে রাষ্ট্র ও নগর কর্তৃপক্ষের কোনো উদ্যোগ নেই। ইউরোপিয়ান ক্লাবকে জাদুঘর হিসেবে সংরক্ষণের জন্য দীর্ঘদিনের দাবি সত্ত্বেও সেটা অবহেলায় ফেলে রাখা হয়েছে। যাদের আত্মদান ও সংগ্রামের স্মৃতিতে চট্টগ্রাম ‘বীর চট্টলা’ হয়েছে, সেই চট্টলা আজ তার বীরদের ভুলতে বসেছে, যা লজ্জা ও বেদনার। তরুণ প্রজন্মের সামনে প্রীতিলতাদের সংগ্রামী গৌরবগাঁথা তুলে ধরে, তাঁদের সেই ঋণ আজ শোধ করতে হবে।
 
সংগঠনের জেলা আহবায়ক আসমা আক্তারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, চট্টগ্রাম সরকারি মহিলা কলেজের উপাধ্যক্ষ সালমা রহমান ও সহকারী অধ্যাপক নিগার সুলতানা, নারীমুক্তি কেন্দ্রের জেলা সদস্য দীপা মজুমদার প্রমুখ।

বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল- বাসদ 

চট্টগ্রাম নগরীর পাহাড়তলীতে প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদারের ভাস্কর্যে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে শ্রদ্ধা জানান বাসদের নেতাকর্মীরা। পুষ্পস্তবক অর্পণের পর সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বক্তারা বলেন, দেশমাতার প্রতি প্রীতিলতার প্রতি গভীর আত্মত্যাগ আমরা যেমন স্মরণ করতে চাই শ্রদ্ধাভরে, তেমনি তাঁর এই লড়াই থেকে আমরা প্রেরণাও নিতে চাই। প্রীতিলতার সামনে সেদিন স্বপ্ন ছিল একটি স্বাধীন, সকলের অধিকার নিশ্চিত হয় এমন একটি ভূখণ্ডের। কিন্তু আজকের বাংলাদেশে এসে ব্রিটিশ শাসন না থাকলেও দেশীয় শাসকরাই আজ একই চরিত্র নিয়ে জনগণের উপর চালাচ্ছে দুঃশাসন। আজ তাই একই প্রেরণা ও সাহস নিয়ে এই অপশাসনের বিরুদ্ধে লড়াই করতে হবে।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাসদ চট্টগ্রাম জেলা ইনচার্জ আল কাদেরী জয়, সদস্য রায়হান উদ্দিন, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট জেলার আহবায়ক হেলাল উদ্দিন কবির, সদস্য নুরুল হুদা নিপু, নাজিম উদ্দিন বাপ্পী, রেশমা আক্তার, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নগরের সভাপতি মিরাজ উদ্দিন ও শিক্ষক শফিউল আলম।

বাংলাদেশ সাম্যবাদী আন্দোলন

বৃটিশ বিরোধী লড়াইয়ের সৈনিক বীরকন্যা প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদারের ৯০ তম আত্মাহুতি দিবসে নগরীর পাহাড়তলী প্রীতিলতার ভাস্কর্যে পুস্পস্তবক অর্পণ করেছে বাংলাদেশের সাম্যবাদী আন্দোলন।

শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) পুষ্পস্তবক অর্পণের পর পরবর্তী  সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের সাম্যবাদী আন্দোলনের সমন্বয়ক সত্যজিৎ বিশ্বাস, গণতান্ত্রিক শ্রমিক আন্দোলনের আহবায়ক অপুদাশগুপ্ত, গণতান্ত্রিক ছাত্র কাউন্সিলের আহবায়ক এনি চৌধুরী।

বক্তারা বলেন, বৃটিশ শাসনের বিরুদ্ধে প্রীতিলতা যে স্বপ্ন নিয়ে জীবন দিয়েছিলেন, সেই স্বপ্ন আজও অপূর্ণ। শ্রমিক শ্রেণির শাসন ক্ষমতা ও শোষণহীন সমাজ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে এই স্বপ্ন পূরণ হতে পারে। এজন্য শ্রমিক, কৃষক ছাত্র জনতার ঐক্যবদ্ধ লড়াই গড়ে তুলতে হবে। এই লড়াইয়ে বীর কন্যা প্রীতিলতার চেতনা ও জীবন সংগ্রাম আজও আমাদের সাহসের প্রেরণা হয়ে থাকবে।

চট্টগ্রাম জেলা ছাত্র ইউনিয়ন

নগরীর পাহাড়তলীতে বীরকন্যা প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদারের ভাস্কর্যে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানিয়েছে চট্টগ্রাম জেলা জেলা ছাত্র ইউনিয়ন। 

সংক্ষিপ্ত সভায় ছাত্র ইউনিয়নের নেতারা বলেন, স্বদেশের মুক্তির জন্য ১৯৩২ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর তৎকালীন ইউরোপিয়ান ক্লাব আক্রমণ করতে গিয়ে প্রীতিলতা জীবন উৎসর্গ করেছিলেন। ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের শোষণের হাতিয়ারকে গুঁড়িয়ে দিয়ে হাজার হাজার তরুণ-যুবক ভারতীয় স্বাধীনতা আন্দোলনে অংশগ্রহণ করে আত্মাহুতি দিয়েছেন। কিন্তু তখনও এদেশের মানুষ কেউ চিন্তা করেনি যে বিপদসংকুল সশস্ত্র বিপ্লবের পথে নারীরা অংশগ্রহণ করতে পারে। 

নেতৃবৃন্দরা আরও বলেন, আজ ইংরেজ নেই, নেই পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠী, তবুও সমাজে অন্যায়, শোষণ, বঞ্চনা কমেনি। স্বাধীন হয়েও মানুষ পায়নি অন্ন, বস্ত্র, শিক্ষা, চিকিৎসাসহ বেঁচে থাকার অধিকার। যে সাম্রাজ্যবাদী বিদেশি শাসনের বিরুদ্ধে প্রীতিলতা, সূর্যসেনরা লড়াই করেছিলেন সে সাম্রাজ্যবাদী শক্তির কাছে আজ স্বাধীন দেশের শাসক নাতজানু। একের পর এক জাতীয় সম্পদ বিদেশি কোম্পানির কাছে ইজারা দিয়ে দেশকে সম্পদহীন করা হচ্ছে। এর সাথে রয়েছে ঘরে বাইরে মানুষের নিরাপত্তাহীনতা। প্রতিদিন বেড়ে চলেছে নারী নির্যাতন, ধর্ষণ, গুম-খুন। আতংকিত সাধারণ মানুষ। তাই নিছক ইতিহাস চর্চা নয়, আজকের সংকট থেকে মুক্তি পেতে প্রয়োজন প্রীতিলতাসহ অগ্নিযুগের বিপ্লবী ও বড় মানুষের শিক্ষা। সমস্ত অন্যায় ও শোষণের বিরুদ্ধে বীরকন্যার জীবন ও সংগ্রাম আগামী দিনে লড়াইয়ের প্রেরণা যোগাবে। 

সংক্ষিপ্ত সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি এ্যানি সেন, সাংস্কৃতিক সম্পাদক শুভ দেব নাথ, হালিশহর থানার সদস্য অবিনাশ রায়, পাহাড়তলী থানার সদস্য তপন দে, প্রণয়নী ইপা, মুক্তা পাল প্রমুখ ।

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট

শনিবার সকালে প্রীতিলতার ভাস্কর্যে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায় সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট চট্টগ্রাম নগর শাখা। এসময় সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তারা বলেন, মৃত্যুকে বরণ করার সাহস সব মানুষের থাকে না। যারা অকুতোভয়ে মৃত্যুকে আলিঙ্গন করার হিম্মত বুকে ধারণ করেন, তাঁরাই মরেও অমর হয়ে থাকেন মানুষের হৃদয়ে, স্মৃতিতে। তেমনি একজন প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার। মাস্টারদা সূর্য সেনের নেতৃত্বে বৃটিশবিরোধী সশস্ত্র আন্দোলনে যোগ দিয়েছিলেন তিনি। প্রীতিলতার আত্মাহুতির ঘটনার পর কেটে গেছে ৯০ বছর। এখন হয়তো দেশমাতৃকা প্রীতিলতাদের স্বপ্নের সেই দেশমাতৃকা হয়নি। সেজন্য আমাদের লড়াই অব্যাহত থাকবে।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সামজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট চট্টগ্রাম নগর শাখার সভাপতি মিরাজউদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক প্রীতম বড়ুয়া, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক ঋজু লক্ষ্মী অবরোধ প্রমুখ।

আইসি/এসএ