শনিবার ২৫ জুন ২০২২

| ১০ আষাঢ় ১৪২৯

KSRM
মহানগর নিউজ :: Mohanagar News

প্রকাশের সময়:
২০:৩৮, ৯ জুন ২০২২

ইমরান চৌধুরী

কাজীর দেউড়ির ত্রাস দুই ভাই, পিস্তল বাবু খুন করে প্রকাশ্যেই

প্রকাশের সময়: ২০:৩৮, ৯ জুন ২০২২

ইমরান চৌধুরী

কাজীর দেউড়ির ত্রাস দুই ভাই, পিস্তল বাবু খুন করে প্রকাশ্যেই

আপন দুই ভাই রফিকুল ইসলাম ও ফয়সাল বাবু ওরফে পিস্তল বাবু। কেউ তাদের চেনেন এলাকার ‘মাদকের রাজা’ হিসেবে। আবার কেউ তাদের চেনেন চাঁদাবাজির কারণে। এ দুই ‘রাজা’র ত্রাসে নগরীর আসকারদিঘীর পাড় থেকে কাজীর দেউড়ি এলাকার মানুষের দিন কাটছে আতঙ্কে। স্থানীয়দের অভিযোগ, কথিত এক বড় ভাইয়ের শেল্টারে এসব অপরাধ করে যাচ্ছেন তারা।

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) ভোরে কাজীর দেউড়ির ২নং গলি এলাকায় খুন হন মঈনুদ্দিন নামে এক ব্যবসায়ী। এ ঘটনায় তার সঙ্গে থাকা আরেকজন, মোবারক ওরফে সজীব গুরুতর আহত অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (চমেক) চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

পুলিশ বলছে, পূর্ব শত্রুতার জের ও বাণিজ্য মেলায় কাপড়ের দোকান দেওয়াকে কেন্দ্র করে এই খুনের ঘটনা ঘটেছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় এক বাসিন্দা মহানগরনিউজকে অভিযোগ করে বলেন, রফিক ও বাবু, এই দুই ভাইয়ের মাদক ব্যবসা ও চাঁদাবাজিতে অতিষ্ঠ আমরা। মাঝে মাঝে ছিনতাইও করে তারা। মোবারকের কাছ থেকেও একাধিকবার চাঁদা চেয়েছিল বাবু। বাণিজ্য মেলায় দোকান দেওয়া ও পূর্বশত্রুতার জের ধরে আজ (বৃহস্পতিবার) সকালে কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে মঈনুদ্দিন ও মোবারককে ছুরিকাঘাত করে বাবু ও তার সহযোগীরা।

তিনি বলেন, পিস্তল বাবুর অধীনে একাধিক কিশোর গ্যাং আছে। তার মধ্যে এফআই গ্যাং দিয়েই সে তার চাঁদাবাজি, মারামারি ও ছিনতাইয়ের কাজ চালাত। পুলিশের তালিকাতেও এই দুই ভাইয়ের নাম আছে বলে শুনেছি। ফরহাদুল ইসলাম রিন্টু নামে এক যুবলীগ নেতার নাম ভাঙিয়ে আসকারদিঘী ও কাজীর দেউড়ি এলাকায় এসব অপকর্ম করে বেড়ায় তারা।

অপর এক বাসিন্দা অভিযোগ করেন, কিছুদিন আগে আমার কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেছিল তারা। আমি দিতে অস্বীকৃতি জানালে কিছুদিন আগে তারা আমাকে মেরে আহত করে এবং আমার দুই সহকারীকে হাতে ছুরি মেরে রক্তাক্ত করে।

কাজীর দেউড়ি এলাকার এক দোকানদার বলেন, রাস্তার ফুটপাতে গড়ে ওঠা যেসব ভাসমান দোকান আছে, সবার কাছ থেকেই চাঁদা নেন বাবু। এ কাজে তাকে সহায়তা করে তার ভাই রফিক। কেউ চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে তাদেরকে ছেলে-পেলে এনে বেধড়ক মারা হয়। রফিকের ইয়াবা ব্যবসার কারণে এলাকার যুবসমাজ বিপথে চলে যাচ্ছে। এছাড়া বাবু সবসময় নেশায় মত্ত থাকে। কেউ ভয়ে তাদের বিরুদ্ধে কথা বলতে পারে না।

এদিকে এই দুই অভিযুক্তকে ‘শেল্টার’ দেওয়ার অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা ও বর্তমানে যুবলীগ নেতা ফরহাদুল ইসলাম রিন্টু মহানগরনিউজকে বলেন, এসব মিথ্যা কথা। আমার নাম ভাঙিয়ে কেউ চাঁদাবাজি বা মাদক ব্যবসা করে এরকম প্রমাণ দিতে পারলে আমি রাজনীতি ছেড়ে দিব। রাজনীতিতে ১০ জন ভালোর মধ্যে এক-দুইজন খারাপ থাকতে পারে। এটা সত্য যে, রফিক আমার সাথে থাকে। তবে বাবুর ব্যাপারে আমি কিছু জানি না। আর কেউ যদি আমার অগোচরে আমার নাম ভাঙিয়ে কোনো অপকর্ম করে থাকে, তাহলে সেখানে আমার করার কী আছে?

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদুল কবির বলেন, বাবুকে এরআগেও আমরা গ্রেফতার করেছি। তার পেশাই হচ্ছে মাদক ব্যবসা ও চাঁদাবাজি করা। চাঁদা না পেলে সে ছেলে-পেলে দিয়ে মানুষকে মারধর করে। কাজীর দেউড়িতে খুনের ঘটনায় সে জড়িত বলে আমরা জানতে পেরেছি।

ওসি জাহিদুল কবির আরও জানান, ছুরিকাঘাতে নিহত মঈনুদ্দিন ও আহত মোবারকের বোনের বাণিজ্য মেলায় দোকান দেওয়াকে কেন্দ্র করে বাবুর সাথে কয়েকদিন ধরেই ঝামেলা চলছিল। সেই ঝামেলার জেরেই মঈনুদ্দিন ও মোবারককে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। বাবুকে ধরার জন্য আমাদের অভিযান চলছে।

জেডএইচ