শুক্রবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২২

| ২৫ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

KSRM
মহানগর নিউজ :: Mohanagar News

প্রকাশের সময়:
১৩:১৩, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

জাহেদুল ইসলাম আরিফ, রাঙ্গুনিয়া

রাঙ্গুনিায়ায় ধানগাছে হলুদ পাতা—আমনের ভালো ফলন নিয়ে উদ্বিগ্ন কৃষকরা

প্রকাশের সময়: ১৩:১৩, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

জাহেদুল ইসলাম আরিফ, রাঙ্গুনিয়া

রাঙ্গুনিায়ায় ধানগাছে হলুদ পাতা—আমনের ভালো ফলন নিয়ে উদ্বিগ্ন কৃষকরা

এক থেকে দেড় মাস পরই শুরু হবে আমন ধান কাটা। কৃষকরা সেই অনুযায়ী প্রস্তুতিও নিচ্ছেন। কিন্তু এরই মধ্যে দেখা দিয়েছে ধানের গাছে সবুজ পাতা হলুদ হয়ে যাচ্ছে। পাতা পচে ঝরে পড়ছে। এ অবস্থায় ধানের ফলন ভালো হবে কিনা তা নিয়ে উদ্বিগ্ন রাঙ্গুনিয়ার কৃষকরা। 

রাঙ্গুনিয়া কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, এ বছর উপজেলায় ১৫ হাজার ৪৪৫ হেক্টর জমিতে আমন চাষাবাদ হয়েছে। 

শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে দেখা গেছে, ইসলামপুর, দেশের শস্যভাণ্ডার খ্যাত গুমাইবিল, মরিয়ম নগর, রোয়াজারহাট কর্ণফুলী এলাকা, শান্তির হাটের বিভিন্ন গ্রামে বিস্তীর্ণ আমন ধানের খেত। এখনো ধানগাছে থোড় বের হয়নি। গাছ সবুজ থাকার কথা। কিন্তু দূর থেকে দেখে মনে হচ্ছে অনেক জমির ধান পেকে গেছে। কাছে গেলে দেখা যায় পাতা হলুদ হয়ে গেছে, পচে ঝরে পড়ছে। 

কৃষকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গাছের সবুজ পাতা হলুদ বা লাল হয়ে যাচ্ছে। কিছু পাতা সাদা হয়ে পচে ঝরে পড়ছে। অনেকে নিজেদের অভিজ্ঞতা অনুযায়ী, আবার কেউ কেউ কৃষি বিভাগের পরামর্শে পটাশসহ বিভিন্ন ধরনের সার স্প্রে করছেন। কেউ কেউ দু-তিনবারও স্প্রে করেছেন। কিন্তু সুফল পাচ্ছেন না।

পোমরা ইউনিয়নের কৃষক আবদুল কাদের বলেন, ‘গাছ হলুদ হয়ে যাচ্ছে। দূর থেকে মনে হয় ধান পেকে গেছে। অথচ এখনো ধানের থোড়ই বের হয়নি। ধান পাকতে আরও এক থেকে দেড় মাস সময় লাগবে। থোড় বের হওয়ার আগে পাতা হলুদ হওয়ায় আমাদের বিরাট ক্ষতি হয়ে যাবে। অর্ধেক ফসলও পাবো না।’

এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কারিমা আক্তার বলেন, ‘আর কয়েকমাস পর পাকা ধান কাটা শুরু হবে। তবে প্রতিবছর এ রকম কিছু জমির ধানগাছের পাতা লাল বা হলুদ হয়ে থাকে। কিছু জমিতে সারের অভাবে কিংবা ধান গাছে পোকা ধরায় হলুদ হয়ে যায়। তবে এখন পর্যন্ত কোনো কৃষক অভিযোগ নিয়ে আসেনি।’ 

কৃষকদের পরামর্শ দিয়ে এ কৃষি কর্মকর্তা জানান, যাদের কৃষি জমির ধান ক্ষেতে এমন সমস্যা দেখা দেবে তারা যেন মাঠপর্যায়ের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা বা কৃষি অফিসের সহযোগিতা নেয়। 

এআই