শুক্রবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২২

| ২৫ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

KSRM
মহানগর নিউজ :: Mohanagar News

প্রকাশের সময়:
১৭:২৯, ২১ নভেম্বর ২০২২

মহানগর ডেস্ক

যে কারণে ফুটবল বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সম্প্রচার করেনি বিবিসি

প্রকাশের সময়: ১৭:২৯, ২১ নভেম্বর ২০২২

মহানগর ডেস্ক

যে কারণে ফুটবল বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সম্প্রচার করেনি বিবিসি

গতকাল রবিবার (২০ নভেম্বর) নানান আয়োজনের মধ্য দিয়ে উদ্বোধন হয়েছে কাতার বিশ্বকাপ। এদিন কাতারের আল বায়েত স্টেডিয়ামে ৬০ হাজার দর্শকের সামনে নানা ধরনের ইভেন্টের মাধ্যমে আরবের সংস্কৃতি তুলে ধরে দেশটি।

মাঠের বাইরে সারাবিশ্বের কোটি কোটি দর্শক টিভি পর্দায় এই অনুষ্ঠান দেখেছে। তবে বিশ্বের অন্যতম প্রধান সম্প্রচার মাধ্যম বিবিসি এই গুরুত্বপূর্ণ অনুষ্ঠানটি নিজেদের প্রধান চ্যানেলে সরাসরি সম্প্রচার করেনি।

কিন্তু তারা তাদের আইপ্লেয়ার অ্যাপ, রেড বাটন ও ওয়েবসাইটে দ্বিতীয় সারির স্ট্রিমিংয়ের মাধ্যমে রেলিগেটেড কভারেজ দেয়। ফলে অসংখ্য দর্শক বিবিসি ওয়ানে অনুষ্ঠানটির সম্প্রচার দেখতে গিয়ে হতাশ হয়েছেন। 

বিবিসি ওয়ানে এ সময় চেলসি-টটেনহ্যামের মধ্যকার নারীদের সুপার লিগের ম্যাচ সম্প্রচার করা হয়, যা বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরুর পর শেষ হয়। বিবিসির সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টিম একই সময়ে একটি চার মিনিটের ইনস্টাগ্রাম ভিডিও প্রকাশ করে, যেখানে ১৯৮২ সালের সমকামী (গে) গেমসের চুম্বক অংশ দেখানো হয়। খেলাধুলায় সমকামিতা ভীতির বিষয়টি তুলে ধরতে সাবেক এক অলিম্পিয়ান এই ক্রীড়া আসরের আয়োজন করেছিলেন।

চ্যানেলটি যখন কাতারে এটির অনুষ্ঠান সম্প্রচার শুরু করে, উপস্থাপক গ্যারি লিনেকার, অ্যালেক্স স্কট, এবং অ্যালেক্স শিয়েরার স্বাগতিক দেশটির বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগগুলো নিয়ে কথা বলতে থাকেন।

ইংল্যান্ডের সাবেক তারকা ফুটবলার লিনেকার তার স্বাগত বক্তব্যে বলেন, 'এটিই ইতিহাসের সবচেয়ে বিতর্কিত বিশ্বকাপ, এমনকি এর একটি বল মাঠে গড়ানোর আগেই।’

তিনি আরও বলেন, ‘ফিফা ২০১০ সালে বিশ্বকাপের স্বাগতিক হিসেবে টুর্নামেন্টটির ক্ষুদ্রতম স্বাগতিক দেশ কাতারকে বেছে নেওয়ার সময় থেকেই বেশ কিছু প্রশ্ন দেখা দেয়। স্বাগতিক দেশ হিসেবে বিডিং প্রক্রিয়ায় দুর্নীতির আশ্রয় গ্রহণ থেকে শুরু করে অভিবাসী শ্রমিকদের প্রতি নির্মম আচরণ, যার কারণে অনেকেই তাদের জীবন হারিয়েছে।’

'সমকামিতা অবৈধ সেখানে, নারী অধিকার ও মত প্রকাশের স্বাধীনতা হরণ সবসময়ই স্পটলাইটে ছিল। এছাড়াও ছয় বছর আগে বিশ্বকাপকে গ্রীষ্মকাল থেকে শীতকালে নিয়ে যাওয়ার মতো বিতর্কিত সিদ্ধান্তও রয়েছে।

লিনেকার অবশ্য বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সরাসরি বিবিসির প্রধান চ্যানেলে না দেখানোর পেছনে যুক্তিও দেখাচ্ছেন। এটা সম্পূর্ণভাবেই সময় ও সামর্থের বিষয় দাবি করে তিনি টুইট করেন, ‘এই অনুষ্ঠানটি সরাসরি ও সম্পূর্ণভাবে বিবিসি আইপ্লেয়ার, বিবিসি স্পোর্টস ও রেড বাটনে সম্প্রচার করা হয়েছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সময়সূচী অতিসম্প্রতি বদল করা হয়েছে এবং ওমেন সুপার লিগ আগে থেকেই বিবিসি ওয়ানের জন্য নির্ধারিত ছিল। যদি আপনি এটা দেখতে চান, তবে দেখতে পারেন।’

উল্লেখ্য, বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও খেলা ফিফার প্রকৃত পরিকল্পনার চেয়ে একদিন এগিয়ে আনা হয়েছিল, যা তিন মাস আগে আগস্টে ঠিক করা হয়। 

এআই